বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
97 জন দেখেছেন
"বাংলা দ্বিতীয় পত্র" বিভাগে করেছেন (1,086 পয়েন্ট)
পূনঃরায় খোলা করেছেন

"ছাত্রজীবনের দায়িত্ব ও কর্তব্য" এই  রচনাটির  2 টি প্যারা লিখে দিন।

  • স্বাবলম্বন
  • উপসংহার(এই প্যারায় একটি সুন্দর কবিতা দিলে ভালো হতো,না দিলে সমস্যা নেই)
  • দয়া করে লিখে দিন,খুব দরকার।লিখে দিলে খুবই কৃতজ্ঞ থাকব। ~ অগ্রিম ধন্যবাদ।।।।।।
করেছেন (4,656 পয়েন্ট)
দেখুন তো! উপসংহারের বেলায় নিচের কবিতাটি কিরকম লাগে?

“শিক্ষা সাধনা চেতনাশীল মন,
    এরই নাম ছাত্র জীবন।
সর্বদা লক্ষ্য রবে প্রগতি ও শান্তির প্রতি,
    জীবনে লভিবে তব অগ্রগতি।
হাতের লেখা সুন্দর হলে নাম্বার পাবে বেশি,
    পরীক্ষায় যখন পাশ করিবে ফুটবে মুখে হাসি।
একতা সততা মানবতা সর্বদা নিবেদিত প্রাণ,
    ভূবনে জীবনে স্বপ্ন সাধনা দেশ ও জাতির কল্যাণ।”
করেছেন (1,086 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন
খুব ভালো।
 এখন প্যারাগুলো লিখে দিন।।।প্লিজ প্লিজ প্লিজ।।
করেছেন (720 পয়েন্ট)
ভাইয়া আমাকে ভূমিকার জন্য একটা কবিতা লিখে দিবেন।

1 উত্তর

+1 টি পছন্দ
করেছেন (41 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর

ছাত্রজীবনে স্বাবলম্বন: ছাত্রজীবনই হল স্বাবলম্বন শক্তি অর্জনের যথার্থ ক্ষেত্র। স্বাবলম্বনই ছাত্রজীবনে সাফল্যের সোপান। শুধুমাত্র চর্বিত-চর্বণ করে বা পরনির্ভরশীল হয়ে কখনও স্বাধীন চিন্তাশক্তিকে বিকশিত করা সম্ভব নয়। পঠিত বিষয় সম্পর্কে মৌলিক চিন্তাশক্তির জাগরণ ঘটায় স্বাবলম্বন-শক্তি। এই সময়ই প্রয়োজন স্বাবলম্বন-শক্তি অনুশীলন। মানুষ জীবনের প্রভাতে যে দুর্লভ গুণাবলি আয়ত্তের সাধনা করে, পরবর্তী জীবনে তারই সিদ্ধি। শিশু যেমন স্ব-চেষ্টায় চলার শক্তি সংগ্রহ করে, যেমন করে সে খেতে শেখে, রপ্ত করে কথা বলার কলাকৌশল, সেভাবেই মানুষকে ছাত্রাবস্থায় স্বাবলম্বন- শক্তিকে জাগ্রত করতে হয়। প্রথম থেকেই উপলব্ধি করতে হবে, সে মানুষ। তার মধ্যেই নিহিত আছে সৃষ্টি সর্বশ্রেষ্ঠ প্রকাশ। তারই মধ্যে সুপ্ত আছে অসীম অনন্ত শক্তি। স্বাবলম্বন সেই সুপ্তশক্তিরই জাগরণমন্ত্র। শৈশবই সেই পূজা-দেবী। তা না হলে ভবিষ্যৎ জীবনে তিলে তিলে ব্যর্থতা, হতাশায় মৃত্যু-বরণের দুঃসহ জ্বালা।

উপসংহারঃ দেশ ও জাতি সৎ, চরিত্রবান, নিয়মনিষ্ঠ, কর্তব্যপরায়ণ, সৌজন্যবোধসম্পন্ন পরিশ্রমী ছাত্রসমাজের কামনা করে। সাম্প্রতিককালে ছাত্রসমাজ আদর্শ থেকে বিচ্যুত হয়ে বিভিন্ন ধরণের অপরাধমূলক কাজ করছে। ছাত্র-রাজনীতির নামে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ছে। যা দেশ ও জাতির কাছে মোটেও কাম্য নয়। এভাবে চলতে থাকলে জাতি শেকড়হীন হয়ে পড়বে। তাই ছাত্রসমাজের উচিত তাদের প্রকৃত আদর্শে আলোকিত হওয়া। যে শিক্ষা ও মূল্যবোধ ছাত্ররা অর্জন করে ভবিষ্যতে তা পরিপূর্ণ ভাবে কাজে লাগানো, ছাত্রদের প্রকৃত উদ্দেশ্য হওয়া উচিত।  


আর ভূমিকার জন্য এই কবিতা লিখতে পারেন :

আমরা শক্তি আমরা বল, 
আমরা ছাত্রদল 
মোদের পায়ের তলায় 
মূর্ছে তুফান ঊর্ধ্বে বিমান ঝড়-বাদল, 
আমরা ছাত্রদল।
কাজী নজরুল ইসলাম

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
1 উত্তর
27 এপ্রিল "বাংলা দ্বিতীয় পত্র" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
3 টি উত্তর

306,906 টি প্রশ্ন

395,802 টি উত্তর

120,901 টি মন্তব্য

170,073 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...