বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
133 জন দেখেছেন
"ফাতাওয়া-আরকানুল-ইসলাম" বিভাগে করেছেন (26 পয়েন্ট)
পূনঃরায় খোলা করেছেন
আমার বাবা হালাল ব্যাবসা করেন। কিন্তু ব্যাংকের সাথে সুদসহ লেনদেন করেন। তাই উক্ত আয়, হারাম। এখন হারাম খাওয়া কবিরা গুনাহ। এখন কি করতে পারি? আমি তো আয় ও করতে পারিনা। বয়স মাত্র ১৫।

1 উত্তর

+2 টি পছন্দ
করেছেন (10,638 পয়েন্ট)
পিতার কৃতকর্মের জন্য আপনি জাহান্নামী হবেন না। যেদিন কেউ কারো কোন উপকারে আসবে না, সে দিনটি হল কিয়ামতের দিন। সেদিন প্রত্যেককে নিজ নিজ কর্মফলের হিসাব দিতে হবে এবং প্রত্যেককে নিজ কর্মের জন্য দায়ী থাকতে হবে। কেউ অন্যের কর্ম ফলের জন্য দায়ী হবে না। অপরের পাপের পরিণতিতে কেউ জাহান্নামী হবে না।

মহান আল্লাহ বলেনঃ আর তোমরা সে দিনের তাকওয়া অবলম্বন করো যেদিন কেউ কার কোন কাজে আসবে না। আর কারও সুপারিশ গ্রহন করা হবে না এবং কারো কাছ থেকে বিনিময় গৃহীত হবে না। আর তারা সাহায্যও প্রাপ্ত হবে না। (সুরা বাকারা-আয়াতঃ ৪৮)

যেমন মহান আল্লাহ অন্য আয়াতে বলেছেন, হে মানুষ! তোমরা তোমাদের রবের তাকওয়া অবলম্বন কর এবং ভয় কর সে দিনকে, যখন কোন পিতা তার সন্তানের পক্ষ থেকে কিছু আদায় করবে না, অনুরূপ কোন সন্তান সেও তার পিতার পক্ষ থেকে আদায়কারী হবে না। (সূরা লুকমান আয়াতঃ ৩৩)

জনাব! আপনার বাবা হালাল ব্যাবসা করেন। কিন্তু ব্যাংকের সাথে সুদসহ লেনদেন করেন। তাই উক্ত আয় হারাম। আর হারাম খাওয়া কবিরা গুনাহ।

এখন যা করতে হবে তা হলো বাবাকে বুঝিয়ে ব্যাংকের সাথে যে সুদসহ লেনদেন আছে তা পরিহার করে তওবা করতে হবে।

যেহেতু আপনি আয় করতে পারেন না বয়স মাত্র ১৫। জনাব! মন্দ কাজসমূহের মধ্যে হারামকে সবচেয়ে গুরুতর হিসেবে বিবেচনা করা হয়। তবে ব্যক্তি নিরূপায় হয়ে হারাম কাজ করলে তা পাপ হিসেবে গণ্য হয় না। আজ আমি তোমাদের জন্য তোমাদের দ্বীনকে পূর্ণাঙ্গ করে দিলাম, তোমাদের প্রতি আমার নিআমাত পূর্ণ করে দিলাম এবং ইসলামকে তোমাদের দ্বীন হিসেবে কবূল করে নিলাম। তবে কেউ পাপ করার প্রবণতা ব্যতীত ক্ষুধার জ্বালায় (নিষিদ্ধ বস্তু খেতে) বাধ্য হলে আল্লাহ বড়ই ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু। (মায়েদা আয়াতঃ ৩)

যে ব্যক্তি এসব হারাম খাদ্য খেতে বাধ্য হবে তার জন্য খাওয়া হালাল। তবে যেন আল্লাহ তাআলার অবাধ্যাচরণ উদ্দেশ্য না হয় এবং সীমালঙ্ঘন করা না হয়। অর্থাৎ প্রাণ বাঁচানোর জন্য যতটুকু প্রয়োজন শুধু ততটুকু ছাড়া বেশি যেন না খায়।

একটি উদাহরণ দেওয়া হলো মাত্র এতদিন বয়স কম ছিল বলে। কিন্তু এখন সাবালক নিজের ভাল মন্দ নিজেকে বুঝতে হবে এসব হারাম পরিত্যাগ করে আপনাকেও তওবা করতে হবে। কারন এই হারাম খাদ্য যেনে শুনে গ্রহণ করা আপনার জন্য-ও এখন হারাম
সাবির ইসলাম অত্যন্ত ধর্মীয় জ্ঞান পিপাসু এক জ্ঞানান্বেষী। জ্ঞান অন্বেষণ চেতনায় জাগ্রতময়। আপন জ্ঞানকে আরো সমুন্নত করার ইচ্ছা নিয়েই তথ্য প্রযুক্তির জগতে যুক্ত হয়েছেন নিজে জানতে এবং অন্যকে জানাতে। লক্ষ কোটি মানুষের নীরব আলাপনের তীর্থ ক্ষেত্রে যুক্ত আছেন একজন সমন্বয়ক হিসেবে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি উত্তর
1 উত্তর

359,103 টি প্রশ্ন

454,239 টি উত্তর

142,248 টি মন্তব্য

190,067 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...