বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
102 জন দেখেছেন
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (26 পয়েন্ট)
আমি প্রায় প্রতিদিন ওয়াজ বা কোরআন হেডফোন এর মাধ্যমে রাতে শুনে থাকি। বেশ লম্বা সময়। এতে কি কি সমস্যা হতে পারে? কতক্ষণ শোনা ঠিক আছে? প্লিজ সঠিক ও যথাযথ যুক্তিসহ উত্তর দিবেন।

3 উত্তর

+2 টি পছন্দ
করেছেন (17,356 পয়েন্ট)
সাধারণত আমাদের কানের ভেতরের অংশে অর্থাৎ ইনার ইয়ারে থাকে ছোট ছোট লোম।আমরা যখন কোনো শব্দ শুনি তখন এই লোমগুলো কেঁপে ওঠে এবং এই কম্পন স্নায়ুর মাধ্যমে মস্তিষ্কে পাঠায় এক ধরনের বৈদ্যুতিক সংকেত। প্রতিনিয়ত যখন কেউ উঁচু ভলিউমে প্রতিনিয়ত কিংবা লম্বা সময় ধরে গান শোনেন, তখন এটিতে স্থায়ী ক্ষতি হতে পারে, যা শ্রবণশক্তি নষ্ট করে ফেলে।কিছু এয়ারফোন আছে যেগুলি  এয়ারক্যানেল পর্যন্ত প্রবেশ করানো হয়। এতে কানের ভিতর বায়ু প্রবেশ করতে পারে না। যার ফলে ইনফেকশনের সম্ভাবনা থাকে।এছাড়া এর মাধ্যমে সৃষ্ট ইলেক্ট্রম্যাগনেটিক তরঙ্গ আপনার মস্তিষ্কে আঘাত করে।
করেছেন (220 পয়েন্ট)
ধন্যবাদ আপনাকে,  সুন্দর উত্তর দেয়ার জন্য।
0 টি পছন্দ
করেছেন (3,083 পয়েন্ট)
অবশ্যই সমস্যা হতে পারে।এটি খবরদার করবেননা।আপনি যেহেতু দীর্ঘক্ষণ ব্যবহার করছেন তাই আপনার কানের সমস্যা হতে পারে।আপনার শ্রবণশক্তির সমস্যা হতে পারে।আপনি এ কাজ থেকে বিরত থাকুন।ওয়াজ শুনলে শোয়ার আগে শুনুন।বেশি ভলিউম দিবেননা।ঘুমানোর সময় এটি ব্যবহার বন্ধ রাখুন।ঠাণ্ডা মাথায় ঘুমান।
0 টি পছন্দ
করেছেন (62 পয়েন্ট)
১- কান ব্যাথা ।

২- মাথা ব্যাথা ।

৩- কানে কম শোনা ।

ইত্যাদি সমস্যা হতে পারে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
06 মে 2016 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন KKUUAASSHHAA (120 পয়েন্ট)
1 উত্তর
16 এপ্রিল 2015 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন ত্বহা (242 পয়েন্ট)
1 উত্তর
20 মার্চ 2015 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন আরিফুল (15,856 পয়েন্ট)
1 উত্তর
07 জানুয়ারি 2014 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sanjoy (6,513 পয়েন্ট)

321,926 টি প্রশ্ন

412,273 টি উত্তর

127,655 টি মন্তব্য

177,406 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...