বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
408 জন দেখেছেন
"ইবাদত" বিভাগে করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল

আমি শুনলাম যে দেহের গোপন অঙ্গের লোম গুলা নাকি রেজার ব্যাবহার করে পরিষ্কার করা হারাম..........!!¡!!   


এই বিষয় টা একটু ক্লিয়ার করে জানাবেন তো দয়া করে......!!!!???

বন্ধ

1 উত্তর

+3 টি পছন্দ
করেছেন (6,249 পয়েন্ট)
 
সর্বোত্তম উত্তর
রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন পাঁচটি বিষয় মানুষের ফিতরাতের অন্তর্ভূক্ত।

গোঁফ ছাঁটা, বগলের পশম উপড়ে ফেলা, নখ কাটা, নাভির নিম্নাংশের লোম চেঁছে ফেলা এবং খাতনা করা।

এসব কাজের জন্য সময় নির্ধারণ করা সম্পর্কে কুতায়বা (রহঃ) আনাস ইবনে মালিক (রাঃ) বর্ণিত। তিনি বলেনঃ রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন আমাদের জন্য গোঁফ ছাঁটা, নখ কাটা, নাভীর নিম্নভাগের লোম চেঁছে ফেলার ও বগলের পশম উপড়ে ফেলার মেয়াদ নির্দিষ্ট করে দিয়েছেন যে, আমরা যেন এ কাজগুলো চল্লিশ দিনের বেশী সময় পর্যন্ত ফেলে না রাখি।

(সূনান নাসাঈ হাদিস নম্বরঃ ১০, ১৪ হাদিসের মানঃ সহিহ)

লোম ফেলে দেয়া বা না দেয়ার ব্যাপারে বিশেষজ্ঞরা শরীরের লোম গুলোকে তিন শ্রেণীতে ভাগ করেছেনঃ

১। ঐ সমস্ত লোম বা চুল যেগুলো ফেলে দেয়া বা ছেঁটে ছোট রাখার জন্য হুকুম দেয়া হয়েছে। এটি সুনান আল-ফিতরাহ বলে পরিচিত। উপরিউক্ত হাদিসে বিস্তারিত।

২। ঐ সমস্ত লোম যেগুলো ফেলে দেয়া নিষিদ্ধ যার মধ্যে রয়েছে ভ্রু।

৩। ঐ সমস্ত লোম বা চুল যেগুলো ফেলে দিতে হবে নাকি যেমন আছে তেমনি রেখে দিতে হবে সে ব্যাপারে শারিয়াহ কোনো মন্তব্য করেনি। যেমনঃ হাত-পা, গাল বা কপালের লোম।

এ ব্যাপারে বিশেষজ্ঞদের ভিন্ন ভিন্ন মত রয়েছে। কেউ বলেছেন যে, এগুলো ফেলে দেয়ার অনুমতি নেই। কারণ এগুলো ফেলে দেয়ার অর্থ হলো আল্লাহর সৃষ্টিকে পরিবর্তন করা।

আল্লাহ বলেন যে, শয়তান বলেছিলঃ এবং তাদেরকে আল্লাহর সৃষ্ট আকৃতি পরিবর্তন করতে আদেশ দেবো। (আন-নিসাঃ ১১৯)

আবার কেউ বলেছেন যে, এগুলো ঐ সব বিষয়ের অন্তর্ভুক্ত যেগুলোর ব্যাপারে কোনো কিছু বলা নেই। তাই এগুলোর ব্যাপারে হুকুম হলো এগুলো ফেলে দেয়া অনুমোদিত। এগুলো ফেলেও দেয়া যাবে অথবা যেমন আছে তেমন রেখে দেয়া যাবে। কারণ কোরআন এবং সুন্নাহতে যা কিছুর উল্লেখ নেই তা অনুমোদিত। তবে এই মতকে আমরা প্রাধান্য দেবনা।

শেষ কথাঃ গোপন অঙ্গের লোম রেজার ব্যাবহার করে পরিষ্কার করা হারাম নয়। গোপন অঙ্গের লোম চেঁছে ফেলা উত্তম আর তা রেজার দিয়েও করা যায়। তবে মেয়েদের জন্য লোমনাশক ক্রিম বা যে কোনো উপায়ে অর্থাৎ রেজার দিয়ে পরিষ্কার করলেও কোন সমস্যা নেই।
করেছেন (7,927 পয়েন্ট)
এক্সজিলা ( বগল) এর লোম কী উপড়ে ফেলতে হবে....!??

রেজার ব্যাবহার করে ক্লিন করলে কি পাপ হবে...!?? 
করেছেন (10,647 পয়েন্ট)
না রেজার ব্যবহারে পাপ হবে না।মূল কথা হলো অবাঞ্চিত লোম গুলো ব্লেট বা রেজার দিয়ে ছেঁচে ফেলতে হবে লোমের গোড়া থেকে । এতে ভালো ভাবে পরিস্কার হবে এবং দুর্গন্ধ করবে না।
করেছেন (6,249 পয়েন্ট)
বগলের লোম পুরুষ- মহিলা সকলের-ই উপড়ে ফেলতে হবে এটাই হাদিসের বানী। কিন্তু এতে কষ্ট হলে রেজার ব্যাবহার করে ক্লিন করলে পাপ হবে না। (ফাতওয়া)
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

4 টি উত্তর
20 মার্চ "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sagor Miya (9 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
1 উত্তর

294,103 টি প্রশ্ন

380,721 টি উত্তর

115,103 টি মন্তব্য

161,518 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...