user-avatar

রায়হানকাবির

রায়হানকাবির

রায়হানকাবির এর সম্পর্কে
যোগ্যতা ও হাইলাইট
পুরুষ
Unspecified
Unspecified
প্রশ্ন-উত্তর সমূহ 142.21k বার দেখা হয়েছে
জিজ্ঞাসা করেছেন 19 টি প্রশ্ন দেখা হয়েছে 17.72k বার
দিয়েছেন 109 টি উত্তর দেখা হয়েছে 124.49k বার
0 টি ব্লগ
0 টি মন্তব্য
এক্ষেত্রে আপনি বি-ক্যাশ অ্যাকাউন্ট খুলে বি-ক্যাশ অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারেন অথবা ইউএসডিডি কোড ডায়াল করেও বি-ক্যাশ অ্যাকাউন্ট অপারেট করে আপনি আপনার চাহিদা মতো যখন ইচ্ছে তখন আপনার ফোনে এয়ারটাইম রিচার্জ করতে পারবেন।
ভিডিওটি প্লে করার জন্য আপনি যে প্লেয়ারটি ব্যাবহার করছেন উক্ত প্লেয়ারে EAC3 ফরমেট এর অডিও সাপোর্ট করেনা। এজন্যই ভিডিওটির সাথে সাউন্ড প্লে হচ্ছেনা।  এক্ষেত্রে আপনি QQ Player নামের প্লেয়ারটি ইন্সটল করে ব্যাবহার করতে পারেন।    
না।  ২য় পর্যায়ের আবেদনে চয়েজ দিতে গেলে পূর্বের সিকিউরিটি কোডের প্রয়োজন নেই।  তবে হ্যা, আপনি যদি ১ম পর্যায়ের আবেদনে কোনো কলেজে ভর্তির জন্য মনোনীত না হয়ে থাকেন তবে ২য় পর্যায়ের আবেদনে আপনাকে আবেদন ফি দিতে হবেনা  আর যদি ইতিমধ্যেই কোনো কলেজে ভর্তির জন্য মনোনীত হয়ে থাকেন কিন্তু ১৮ তারিখের পূর্বে ১৯৫ টাকা পেমেন্ট না করে ভর্তি ক্যান্সেল করেন সেক্ষেত্রে আপনাকে ২য় পর্যায়ের আবেদনের জন্য ফি প্রদান করতে হবে।                           
এক্ষেত্রে আপনাকে চয়েজের মধ্যমেই ভর্তি হতে হবে।  কোন কলেজে আপনার ভর্তি নিশ্চিত এটা বলা অসম্ভব।  আপনি ২ পর্যায়ের আবেদনে আপনার পছন্দনীয় কলেজগুলো সিলেকশন করে আবেদন সাবমিট করুন।  ২য় পর্যায়ের আবেদনের সিলেকশন রেজাল্টে আপনাকে যে কলেজে মনোনীত করা হবে আপনি সেখানে ভর্তি হতে পারবেন।             

কলেজে ভর্তির অাবেদন?

রায়হানকাবির
Jun 15, 12:11 PM
চয়েজ দিতে পারবে।  যদি তিনি ১ম পর্যায়ের আবেদনের সিলেকশনের রেজাল্টে মনোনীত হওয়া কলেজে ভর্তি নিশ্চয়ন না করলে ২য় পর্যায়ের আবেদন করতে পারবে৷  ১ম পর্যায়ের আবেদনের সিলেকশন রেজাল্ট যদি তিনি কোনো কলেজে ভর্তির জন্য মনোনীত হয়ে থাকেন কিন্তু ভর্তি নিশ্চয়ন করেন নি এক্ষেত্রে তাকে ২ম পর্যায়ের আবেদনে আবেদন ফি প্রদান করতে হবে।                    
উক্ত ফোনটিতে যদি পূর্বে থেকেই পিকচার্স ব্যাকআপ এধরণের সফটওয়্যার যেমন DiskDigger  ইন্সটল দেওয়া থাকে তবে ডিলিটেড হওয়া পিকচার্স গুলি ফেরত পাওয়া যাবে।  তবে হ্যা, যে পিকচার গুলি ডিলিট হয়েছিল ঐ পিকচার গুলির  অরিজিনাল    রেজুলুশনটুশন পাবেন না আপনি। ব্যাকআচপ সফটওয়্যারগুলি সাধারণত ডিভাইসে থাকা ফটো এবং ভিডিওর থাম্বনেইলস গুলো সেভ করে রাখে আর ব্যাকআপের  সময় ওগুলোই ব্যাকআপ করে। 

ফোনের নাম্বার ডিলেট হয়েছে?

রায়হানকাবির
Jun 15, 11:54 AM
আপনি যদি আপনার ফোনের উক্ত কন্টাক্ট নাম্বারগুলি ইতিপূর্বেই কন্টাক্ট ব্যাকআপ সফটওয়্যার দিয়ে ব্যাকআপ করে নিয়ে থাকেন তবে ঐ সফটওয়্যারটি দিয়েই ব্যাকআপ করা নাম্বারের ফাইল্টি আপনার ফোনে ইন্সটল করতে পারবেন তাহলেই পূর্বের সেভ করা কন্টাক্ট নাম্বার গুলি ফেরত পাবেন।  অন্যথায় পাবেননা  । 
আপনার প্রশ্নটি একেবারে ক্লিয়ার নয় তবুও যতটুকু বুঝেছি তার উত্তর দেবার চেষ্টা করলাম।     উইন্ডসরের অপারেটিংসিস্টেম (ওএস)  ইন্সটল দেবার পর কিছু ফিচার আপনি শো করছে না এমনটা হবার কিছু কারন আছে। আসলে আমরা যেসকল উইন্ডসরের ওএস আমাদের ডিভাইসগুলোতে ইন্সটল দিয়ে থাকে সেগুলো ক্র‍্যাক ভার্সন  হয়ে থাকে। আমরা অরিজিনাল ভার্সন/প্রোডাক্ট উইন্ডসরের কাছ থেকে কিনি না।   ক্র‍্যাক ভার্সনের ওএস গুলো কখনো কখনো এডিট করা হয়ে থাকে যার কারণে ইন্সটলের পর সব ফিচার শো করেনা আবার ঐ এডিটেড ওএস আপনার ল্যাপটপে ইন্সটলের জন্য আপনার প্রাইভেসির নিরাপত্তাও হুমকির সম্মুখে আসতে পারে।  আবার এমনটাও  হতে পারে যে আপনি উইন্ডসরের যে ওএস আপনার ল্যাপটপে ইন্সটল দিয়েছেন ঐ ওএস এ উক্ত ফিচার নেই। উদাহরণ হিসেবে বলি, আপনি যদি ল্যাপটপ বা পিসিতে উইন্ডোজ টেন হোম ইন্সটল দিয়ে থাকে তবে কিন্তু আপনি উইন্ডোজ টেন প্রোফেশনালের কিছু  ফিচার  পাবেন না।      
উক্ত ফোনটি রুট করার পর গুগল প্লেস্টোর  থেকে ifont নামের সফটওয়্যারটি ডাউনলোড করে নিন তারপর আইফন্ট অ্যাপে প্রবেশ করে সেখানে হাজারো স্টাইলের ফন্ট দেখতে পাবেন যেগুলো ডাউনলোড করতে পারবেন। আপনার পছন্দের ফন্ট টি ডাউনলোডে পর ফন্ট টি ইন্সটল দিন তারপর আপনার ফোনটি অটমেটিক রিবুট হবে। রিবুটের পর আপনার ফোনে নতুন ফন্টের সব লেখা দেখতে পারবেন ।             
www.xiclassadmission.gov.bd    আপনি এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে বামপাশের নির্দিষ্ট বোর্ডের উপর ক্লিক করলেই একটি পিডিএফ ফাইল ডাউনলোড হবে আর ডাউনলোড হওয়া   পিডিএফ  ফাইলে আপনি ঐ বোর্ডের সকল কলেজের খালি সিট সংখ্যা বা এধরণের তথ্য পাবেন।     
আমি এসএসসি পাশের পর বগুড়ার ভাল কোন কলেজে ভর্তি হতে চাচ্ছি কিন্তু সরকারি আজিজুল হক কলেজ বা সরকারি শাহ সুলতান কলেজের কোনোটাতেই ভর্তি হতে পারছিনা আর এজন্যই আমাকে বগুড়া শহরের অন্যান্য কলেজ সমুহ যেমন বিয়াম কলেজ, আর্মড ব্যাটালিয়ন কলেজ, বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট কলেজ, টিএমএসএস কলেজ এগুলোর কোন একটাতে ভর্তি হতে হচ্ছে এক্ষেত্রে সরকারি ঐ সকল কলেজের তুলনায় এসকল বেসরকারি কলেজে আমার জন্য সুবিধা কতুটুকু বা আমাকে কি রকম খরচ হতে পারে সরকারি কলেজের তুলনায়?
ইন্টারমিডিয়েট পাশের পর আমি চাচ্ছি যে নির্দিষ্ট কোনো একটি বিষয় নিয়ে বিএসসি করব। এক্ষেত্রে সরকারি কোনো টেকনিক্যাল ভার্সিটিতে আমার ভরতি হবার সুযোগ আছে কি?  আর হা, যদি আমি বেসরকারি কোনো কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট পাশ করে থাকি তবে সরকারি ভার্সিটিতে বিএসসি করার সুজোগ কতোটুকু?
উইন্ডোস (১০) টেন প্রোফেশনাল ওএস দ্বারা পরিচালিত একটি কম্পিউটারের হাড্ডিস্কে নির্দিষ্ট কোনো ড্রাইভ বিটলকারা দ্বারা লক করে রাখলে আমার অনুপস্থিতিতে অন্যকেউ যদি ড্রাইভটি খুলতে না পেরে যদি পুরো হাড্ডিস্কটাকেই অন্যকোনো কম্পিউটার দ্বারা ফরমেট করে ফেলে তবে কি সে উক্ত বিটলকার দ্বারা লক করে রাখা নির্দিষ্ট ড্রাইভটির ডাটা ও ফাইলস গুলি মুছে ফেলতে সক্ষম হবে?
ঐ সকল সাবজেক্টগুলোর নাম লিখে দিন। আর হ্যা, কম্পিউটার সাবজেক্ট আছে কিনা সেটিও জানাবেন।
আমি ইন্টারমিডিয়েট পাশ করার পর বিএসসি করব ভাবছি। কিন্তু আমি জানিনা যে ইন্টারমিডিয়েট পাশের পর ডিপ্লোমা না করে সরাসরি কোনো বিষয়ের উপর বিএসসি করার স্কোপ আছে কি না। এ বিষয়ে আপনার কোন তথ্য জানা থাকলে দয়াকরে তা বিস্তারিত লিখে উত্তর সাবমিট করুন। ধন্যবাদ ।