মোহাম্মাদশুভ

মোহাম্মাদশুভ

মোহাম্মাদশুভ

About মোহাম্মাদশুভ

যোগ্যতা ও হাইলাইট
Unspecified
Work Experiences
Skills
Language
Trainings
Education
Social Profile
Add social profile
প্রশ্ন-উত্তর সমূহ 10.47M বার দেখা হয়েছে এই মাসে 147.93k বার
4.15k টি প্রশ্ন দেখা হয়েছে 5.35M বার
4.25k টি উত্তর দেখা হয়েছে 5.12M বার
0 টি ব্লগ
0 টি মন্তব্য
টাইমলাইন
এই লিঙ্কে ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ ২০১৪ লাইভ দেখতে পারবেন কোন বাফারিং ছাড়াঃ http://muhammadshuvo.blogspot.com/p/watch-fifa-online-live.html

http://muhammadshuvo.blogspot.com/2014/06/Fifa-World-Cup-2014-Live.html

এখানে আপনি ফিফা ওয়ার্ল্ড কাপ সরাসরি দেখতে পারবেন।

 

ভারতের পাঞ্জাব প্রদেশের জলন্ধর জেলার নূরমহল এলাকার প্রথিতযশা ধর্মগুরু আশুতোষ মহারাজের দেহ মৃত্যুর পর ফ্রিজে রেখে দিয়েছেন তার ভক্তরা। ইতোমধ্যে দু’বছর পেরিয়ে গেলেও ভক্তদের আশা তিনি আবার জীবন ফিরে পাবেন এবং তাদের জীবনের পথপ্রদর্শক হিসেবে কাজ করবেন।

দু’বছর আগে আজকের দিনে আশুতোষ মহারাজকে মৃত বলে ঘোষণা করেছিলেন চিকিৎসকরা। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর। কিন্তু বিষয়টি আশ্রমের কেউই মেনে নিতে পারেননি। তাদের দাবি, তিনি উচ্চপর্যায়ের ধ্যানে মগ্ন রয়েছেন।

ফ্রিজের চারপাশ ঘিরে সেই সারাক্ষণ ধর্মগুরুর নেতৃস্থানীয় শিষ্যরা নিরাপত্তা বলয় সৃষ্টি করে অবস্থান করছেন।

তার ভক্তরা এখনও বিশ্বাস করেন তার জ্ঞানও রয়েছে। যেকোনো সময়ই জেগে উঠবেন তিনি। গুরুদেব নাকি ভক্তদের কাছে একাধিকবার বার্তা পাঠিয়েছেন, তার দেহ যেন সংরক্ষণ করে রাখা হয়, যতক্ষণ তার ধ্যান না ভাঙছে। তারপর থেকে পঞ্জাবের সেই আশ্রমের ফ্রিজারেই রেখে দেওয়া হয় ধর্মগুরুর দেহটিকে।

আরও জানা যায়, আশ্রমের মুখপাত্র স্বামী বিশালানন্দ জানিয়েছেন,গুরুদেব সমাধিতে যাওয়ার আগে বলে গিয়েছিলেন লম্বা সময়ের জন্য ধ্যানে বসছেন তিনি। রামকৃষ্ণ পরমহংসদেব ও আদি গুরু শঙ্করাচার্য তাদের   সমাধিতে গিয়ে ফিরে এসেছিলেন তাই ধর্মগুরু আশুতোষ মহারাজও ঠিক ফিরে আসবেন।

তার ভক্তরা এখনও আশুতোষ মহারাজের ধ্যান ভাঙার অপেক্ষায় রয়েছেন। যতদিন না তিনি ফিরে আসছেন, ততদিন পর্যন্ত নূরমহল শহরের এই আশ্রমে ভক্তরা তাঁদের গুরুদেবের জন্য অপেক্ষা করবেন।

উল্লেখ্য আশুতোষ মহারাজ হলেন, সেইসমস্ত ধর্মগুরুদের একজন যিনি ‘দিব্য জ্যোতি জাগ্রতি সংস্থা’র বাহক হিসেবে কাজ করেছেন। বিশ্বজুড়ে তার অসংখ্য ভক্ত রয়েছে। তার অন্তিম সৎকার নিয়ে পাঞ্জাব ও হরিয়ানা সরকারের মধ্যে মামলাও হয়েছিল।

উপকরণ : একটি বড় রুই মাছের মাথা ও লেজের অংশ ১ কেজি, আদা বাটা ১ চা-চামচ, রসুন বাটা ১ চা-চামচ, জিরা বাটা ১ চা-চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা-চামচ, দারুচিনি ২ টুকরা, মেথি গুঁড়া সামান্য, এলাচ ২টি, লবঙ্গ ২টি, পেঁয়াজ কুচি ১ কাপ, কাঁচামরিচ ফালি ৪-৫টি, ধনে পাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, তেল পৌনে ১ কাপ, লবণ স্বাদমতো, টমেটো কুচি আধা কাপ, তেজপাতা ২টি, টমেটো সস ২ টেবিল চামচ। প্রণালি : মাছ ধুয়ে পানি ঝরিয়ে ছোট টুকরা করে রাখতে হবে। কড়াইয়ে তেল গরম করে পেঁয়াজ ঘিয়া রং করে ভেজে সব বাটা মসলা ও গুঁড়া মসলা, গরম মসলা দিয়ে কষিয়ে মাছ দিয়ে ভুনতে হবে। লবণ, টমেটো দিয়ে ঢেকে দিয়ে অল্প পানিতে ৩০ থেকে ৩৫ মিনিট রান্না করতে হবে। মাঝেমধ্যে নেড়ে দিতে হবে। পানি দেওয়া যাবে না। তেলের ওপর এলে টমেটো সস দিয়ে কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে কাঁচা মরিচ, ধনে পাতা দিয়ে নামাতে হবে।
উপকরণ : বেলে মাছ ২৫০ গ্রাম, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, ধনেপাতা কুচি ১ টেবিল চামচ, কাঁচামরিচ আধা চা চামচ, আদা কুচি সামান্য, লবণ স্বাদ অনুযায়ী, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ এবং সরিষা তেল ভাজার জন্য প্রস্তুত প্রণালি : প্রথমে মাছের আঁশ ফেলে দিন। এরপর মাছের মাথা বাদ দিয়ে কাটা মাছে গুঁড়া মসলা ও লবণ মাখিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। তেল গরম করে মাছগুলো ভালো করে এপিঠ-পিঠ ভেজে নিন। মাছ ঠাণ্ডা হলে কাঁটা বেছে নিন। ফ্রাইপ্যানে সামান্য তেলে পেঁয়াজ, কাঁচা মরিচ, ধনেপাতা কুচি ও আদা কুচি ভেজে এতে মাছ ভালো করে মিশিয়ে তৈরি করুন বেলে মাছের ভর্তা।

বাংলাপিডিয়া প্রকাশ করে কে?

মোহাম্মাদশুভ
মোহাম্মাদশুভ
Mar 2, 02:32 PM

মুরংদের দেবতার নাম কী?

মোহাম্মাদশুভ
মোহাম্মাদশুভ
Mar 2, 02:31 PM
instaCall