user-avatar

মোঃআবুমুসাসাজিদ

মোঃআবুমুসাসাজিদ

মোঃআবুমুসাসাজিদ এর সম্পর্কে
যোগ্যতা ও হাইলাইট
পুরুষ
Unspecified
Unspecified
প্রশ্ন-উত্তর সমূহ 284.81k বার দেখা হয়েছে
জিজ্ঞাসা করেছেন 168 টি প্রশ্ন দেখা হয়েছে 172.38k বার
দিয়েছেন 100 টি উত্তর দেখা হয়েছে 112.43k বার
0 টি ব্লগ
0 টি মন্তব্য
আল ফাতাহ সাজেশন পড়ুন। ইনশাআল্লাহ ৭৫% কমন থাকবে। আমি জেডিসি ও দাখিলে কমন পেয়েছি। আলিমেও পড়ছি আল ফাতাহ। 

সালাত কাকে বলে?

মোঃআবুমুসাসাজিদ
Nov 5, 02:00 AM
নির্দিষ্ট সময়ে নির্দিষ্ট শর্তসাপেক্ষে নির্দিষ্ট কিছু রুকন আদায় করাকে সালাত বলে। পুরো সালাত জুড়ে মূলত আল্লাহর প্রশংসা ও রাসূলের উপর দুরূদ পড়া হয়। 

হযরত মুহাম্মদ (সঃ) পুত্রের নাম কী?

মোঃআবুমুসাসাজিদ
Nov 5, 01:57 AM
কাশেম তাহের  ইব্রাহীম 
আমিও পাইনি। ২০১৮ সালে দাখিল পরীক্ষায় খুলনা বিভাগে ফার্স্ট ছিলাম। এখনো এক টাকাও পাইনি। 

পাক-নাপাকি সম্পর্কে প্রশ্ন?

মোঃআবুমুসাসাজিদ
Oct 27, 04:33 PM

যদি তা মল হয় তাহলে আপনার হাতের ওই জায়গা টি নাপাক। আর স্পর্শ করার কারণে অন্য কোনো বস্তুতে তা লাগলে তাও নাপাক। বিশেষ করে যদি কোন পানিতে ওই হাত লাগে তাহলে পানি নাপাক।


ফিকহের ভাষায় এটাকে নাজাসাতে গলীজা বলে।

পাক করার উপায় : পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

রেফারেন্স : হেদায়া প্রথম খন্ড (পবিত্রতার অধ্যায়)
শরহে বেকায়া প্রথম খন্ড (কিতাবুত তাহারাত) 
হারাম ভালোবাসা হলে কোনো দোয়ায় কাজ হবেনা। স্বামীর জন্য হলে সেই দোয়া (এটা মূলত আয়াত) টি হলো : সূরা আনফালের ৬৩ নং আয়াত। 
যাবে। কিন্তু কুরআনে মাজীদ প্যান্টে বা পায়জামার পকেটে রাখা - এটা কুরআনের সাথে অনেক বড় বেয়াদবী। তাই চেষ্টা করবেন বুক পকেটে রাখার। সাথে সাথে খেয়াল রাখবেন সেজদার সময় যেন পড়ে না যায়। উত্তম হলো কোনো উচূ ও পবিত্র স্থানে কুরআন রেখে দিয়ে তারপর নামাজ পড়া। এতে কুরআনেরও হেফাজত হলো আর আপনার নামাজে মনোযোগ ও একাগ্রতা আসল। 
অবশ্যই গুনাহ হবে। আপনি আল্লাহর চাওয়া পূর্ণ করুন,  আল্লাহও আপনার চাওয়া পূর্ণ করবেন ইনশাআল্লাহ। 
তাকানোই তো হারাম। আর পছন্দ করা তো আরো পরের কথা। সূরা নুর, আয়াত :৩০

যদি তেল বা লোশন কোনো কারণে নাপাক না হয়ে থাকে তাহলে ওযুর কোনো ক্ষতি হয় না। 

আর এ বিষয়টি অযু ভঙ্গের সাতটি কারণের বাইরে। তাই সমস্যা নাই।