user-avatar

ফারাবি

◯ ফারাবি

ফারাবি এর সম্পর্কে
যোগ্যতা ও হাইলাইট
পুরুষ
অবিবাহিত
Unspecified
প্রশ্ন-উত্তর সমূহ 817.75k বার দেখা হয়েছে এই মাসে 14.39k বার

না, একই সাথে দুটি বিষয়ে অনার্স করার সিস্টেম নেই৷ তবে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে যদি সন্ধাকালীন ব্যাচ থাকে তাহলে তাদের সাথে কথা বলে দেখতে পারেন৷ তারা সার্টিফিকেট  ফটোকপি দিয়ে ভর্তি নিবে কিনা? যদি না নেয় তাহলে কোন উপায় নেই৷ কেননা সকল বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তির সময় মূল কাগজ জমা নেয়৷ 

এটি একটি ভিটামিন ঔষধ ৷ এর কোন পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই ৷ এটি খেলে মোটা হবেন এমন কোন কথা নেই ৷ এটি খেলে শরীরে শক্তি বৃদ্ধি পাবে, রুচি বাড়বে, রক্ত বৃদ্ধি পাবে ৷ 

তবে হ্যাঁ হজম শক্তি দূর্বল থাকলে পাতলা পায়খানা হতে পারে ৷ 

বিসিএস ক্যাডার বড় ৷ 
বিড়ি কিংবা সিগারেট টানলে ছোট হয়৷

প্রশ্ন উত্তর সাইটের জন্য ভালো থিম বিনামূল্যে পাবেন না ৷ আপনাকে কিনে নিতে হবে৷ থিম কিনতে চাইলে এখানে যোগাযোগ  করুন ৷

ওয়েবসাইট নিজে নিজে বানানো যায়না ৷ যেহেতু আপনি নতুন, আপনার কোন কোডিং জ্ঞান নেই তাই আপনাকে কারো কাছ থেকে বানিয়ে নিতে হবে ৷ 

ওয়েবসাইট বানানোর জন্য ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনতে হয় ৷ তারপর হোস্টিং সার্ভারে সাইটকে সেটআপ করতে হয় ৷ 

এসবকিছু নতুন কেউ পারবে না যদি তার আগে থেকে অভিজ্ঞতা না থাকে ৷ 

আপনি যদি যেকোন সাইট বানাতে চান তাহলে এই লিংকে যোগাযোগ করতে পারেন ৷

হ্যা,  bissoy এর মত হুবহু  দেখতে একটি সাইট আছে৷ 

আর সেটা হচ্ছে Ask Answers 

আপনি কি আস্ক অ্যানসারস সাইটের লিংক চাচ্ছেন ? 

যদি তাই হয় তাহলে এই নিন লিংক 

গবেষণায় দেখা গেছে যে, প্রজেস্টেরন জাতীয় ইমারজেনসি পিল সেবন করে বাচ্চা কনসেপ্ট রোধ করা না গেলেও তা ভ্রুনের উপর কোন প্রভাব ফেলে না ৷ তাই চিন্তার কিছু নেই ৷
দুটোই একই ঔষধ ৷ তাই দুটো একসাথে খাওয়ার দরকার নেই ৷
শরীর দূর্বল থাকলে, মানসিক চাপ থাকলে, দুশ্চিন্তায় থাকলে, আয়রনের অভাব হলে, ইমারজেনসি পিল খেলে, জন্ম নিয়ন্ত্রণ পিল খেলে ইত্যাদি কারনে পিরিয়ড পেছাতে পারে ৷ তাই চিন্তা না ধৈর্য ধরুন ৷
মল বা পায়খানা শক্ত হলে মলদ্বার জ্বালাপোড়া করে ৷ এছাড়া মলদ্বারে কোন কাটা ছেড়া বা ক্ষত থাকলেও জ্বালাপোড়া করতে পারে ৷ তাই কারন নির্ণয় করে চিকিৎসা নিন সুস্থ হবেন ৷ আর খুব অসহ্য হলে Anustat মলম লাগাতে পারেন ৷ তবে এই মলম একনাগাড়ে ৫ দিনের বেশি লাগানো যাবে না ৷ তাতে মলদ্বারে সমস্যা আরো বেশি হবে ৷
এটা কেউ বলতে পারবে না- কনসেপ্ট করবে কি না ? এমনকি সব কটাদিন খেলেও বলা মুসকিল ৷ কারন এটা সম্পূর্ণ সৃষ্টিকর্তার হাতে ৷ তাই অযথা টেনশন করে লাভ নেই ৷
আসলে এটা বীর্য নয় ৷ এটা ভিতরে ইনফেকশনের কারনে সৃষ্ট রস বা পুজ ৷ এজন্য আপনাকে এন্টিবায়োটিক সেবন করতে হবে ৷
না, এমন কোন উপায় নেই ৷ তবে হাইমেন দেখে ভার্জিনিটি বুঝা গেলেও তা সবসময় সত্যি হয় না ৷
আসলে কেন কনসিভ হলো না তা বলা মুসকিল ৷ সামনে মাসে আবার চেষ্টা করেন ৷ যখন ওভুলেশন হবে সে সময়ের ( মাসিকের ১১ তম দিন থেকে ১৭ তম দিন ) পুরো সপ্তাহ প্রতিদিন একবার হলেও মিলন করবেন ৷ আল্লাহর কাছে বেশি করে চান ৷ তিনি খুশি হলে বাচ্চা কনসেপ্ট হয়ে যাবে ৷
না নতুন করে পিল খাওয়ানোর দরকার নেই ৷ তবে পরবর্তী মাসিক না হওয়া পর্যন্তু কনডম ব্যবহার করে শারীরিক মিলন করবেন ৷
আপনি প্রতিদিন সকালে খাওয়ার পর একটি করে প্রোলার্ট ক্যাপসুল খাবেন দুই - তিন মাস ৷ সব ঠিক হয়ে যাবে চিন্তার কিছু নেই ৷
ইসলামী আইন অনুযায়ী মায়ের কিংবা বাবার সম্পত্তি ছেলে সন্তান দুই ভাগ এবং মেয়ে সন্তান এক ভাগ পাবে ৷ কিন্তু গ্রামে একটা ভুল ধারনা প্রচলিত আছে যে মায়ের সম্পত্তি মেয়েরা পায়, ছেলেরা পায় না ৷
কনডম ব্যবহার করতে না চাইলে নরপিল ইনজেকশন দিতে পারেন ৷ একবার দিলে পুরো তিন মাস নিরাপদ থাকতে পারবেন ৷
মাসিক স্রাব যেহেতু হয়েছে ৷ আর এই মাসে এখনো মাসিকের ডেট আসেনি বিধায় গর্ভের লক্ষণ নাও হতে পারে ৷ কারন মাসিকের ডেট মিস হবার কমপক্ষে দুই সপ্তাহ পর গর্ভের লক্ষণ প্রকাশ পেতে শুরু করে ৷ কারো কারো ক্ষেত্রে আগেই পায় তবে সেটা ডেট মিস হবার পর ৷ কিন্তু আপনার ডেট এখনো মিস হয় নি ৷ তাই গর্ভধারণ করার সম্ভাবনা সামান্য ৷ তবে ঘন ঘন পেশাব ডায়াবেটিস হলে অথবা ইনফেকশন হলে হয়ে থাকে ৷ তাই ব্লাড গ্লুকোজ চেক করুন এবং ইউরিন টেস্ট করুন ৷ তাহলে বুঝা যাবে সমস্যা কোথায় ?
সর্বসাকুল্য বেতন হবে ১৯৮২৫ টাকা ৷ তবে ঢাকা শহর এবং সিটি কর্পোরেশন এলাকা হলে বাড়ি ভাড়া আরো বাড়বে ৷ সেক্ষেত্রে টোটাল বেতন ও বাড়বে ৷
মলদারে আশেপাশে ক্ষত হয় সাধারণত ফিস্টুলা হলে ৷ আর এর একটাই চিকিৎসা অপারেশন করা ৷ তাই আপনার উচিৎ হবে অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া ৷ এটা আপনার ফিস্টুলা নাকি সাধারণ ক্ষত ? সেই অনুযায়ী চিকিৎসা করাবেন ৷
হ্যাঁ বাচ্চা হওয়ার সম্ভাবনা আছে ৷ তাই অবশ্যই কনডম ব্যবহার করতে হবে ৷
ইমকন ট্যাবলেট খেলে মাঝে মধ্যে এমন হতে পারে ৷ এতে চিন্তার কিছু নেই ৷ তবে প্রাথমিক চিকিৎসা হিসেবে জন্ম বিরতিকরণ পিল তিন মাস খাওয়ালে ঠিক হতে পারে ৷
না, এটি খেলে তেমন কোন উপকার হবে না ৷ এটি খেলে স্বাস্থ্য ভালো হবে ৷ দ্রুত বীর্যপাত সমাধান হবে না ৷
না, ইনসুলিনের পরিবর্তে কোন ঔষধ সেবন করা যাবে না ৷ কারন একজন চিকিৎসক তখনই ইনসুলিন প্রেসক্রাইব করেন যখন রোগীর অবস্থা মারাত্মক পর্যায়ে থাকে ৷ সাধারণত গ্লুকোজের মাত্রা ১৬ এর বেশি হলে ইনসুলিন প্রয়োজন হয় ৷ আর এর নিচে থাকলে ঔষধ সেবন করেই কন্ট্রোলে রাখা যায় ৷ তাই আপনার গ্লুকোজের মাত্রা পরীক্ষা করে সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন ৷
দুই তিন বার স্বপ্নদোষ হলে সমস্যা নেই ৷ এর বেশি হলে চিকিৎসা নিতে হবে ৷
হাই ব্লাড প্রেসারের ঔষধ দীর্ঘদিন খেলে কারো কারো ক্ষেত্রে যৌনাকাঙ্ক্ষা কমে যায় ৷
গোসল ফরজ হলে গোসল না করে নামায,তাওয়াফ,কুরআন তেলাওয়াত ও স্পর্শ করা এবং মসজিদে গমণ করা নিষেধ। এছাড়া জিকির-আযকার করা, দরুদ শরীফ পড়া, ওযীফা পড়া, বিভিন্ন দোয়া পড়া, ঘরের কাজ করা, পানাহার ইত্যকার কোনো কাজই নিষেধ নয়।