user-avatar

আফজালমাহমুদ

◯ আফজালমাহমুদ

আফজালমাহমুদ এর সম্পর্কে
যোগ্যতা ও হাইলাইট
পুরুষ
Unspecified
Unspecified
প্রশ্ন-উত্তর সমূহ 12.70k বার দেখা হয়েছে এই মাসে 375 বার
আমি দীর্ঘদিন যাবৎ হস্তমৈথন করি সাথে পর্ন গ্রাফিতে আশক্ত ছিলাম। এখন আমি বিবাহিত কিন্তু বউয়ের সাথে যৌন মিলন করতে পারি না। বউয়ের যৌনাঙ্গে পুরুষাঙ্গ অনেক চেষ্টার পরেও প্রবেশ করাতে পারি। আগের মত আর শক্ত হয় না। প্রবেশের পূর্বেই বির্য বের হয় যায়। এসব নিয়ে খুব অশান্তিতে আছি। সমাধান প্লিজ! ডাক্তারের কাছে যেতে চাচ্ছি না। ভেষজ কোন উপায়ে দ্রুত উপশম পাব? অগ্রিম ধন্যবাদ
কমপক্ষে ২ মাস অপেক্ষা করবেন। আর ডাক্তারের পরামর্শ নিলে আরো ভালো।
আমি আগে প্রচুর হস্তমৈথন করতাম কিন্তু গত তিন চার মাসে মাত্র তিনবার করেছি। আমি এখন বিবাহিত। কিন্তু বিয়ের প্রথম বার সেক্স করতে পারি নি। পুরুষাঙ্গ ঠিক মত উথিত হয় নি আর নরম ছিলো। এবং ভেজায়নাতে প্রবেশ করাতে পারি নি অনেক চেষ্টার পরেও। বয়স ২২। এখন এটা নিয়ে খুব চিন্তিত আছি। কোন সমাধান কি আছে? 
হ্যা সমস্যা হবে। তাছাড়া এভাবে ট্রান্সলেট করলে ভাষার মাধুর্যতা থাকবে না। ধন্যবাদ

এখন আমার কী করা উচিৎ?

আফজালমাহমুদ
Jun 8, 10:15 AM
বর্তমানে ক্রোম থেকে কোন পর্ণ সাইটে প্রবেশ করা সম্ভব না। তবিও যদি এমনটা হয় তাহলে সে সকল সাইটে যেন প্রবেশ করতে না পারে সে ব্যবস্থ নিতে হবেস এর জন্য রবা কাস্টমান কেয়ারে ফোন দিলে বিস্তারিত জানতে পারবেন। 
সে একজন মুসলিম, সে সব সময় কোরান পাঠ করে।  তার নামে এখন পর্যন্ত মদ খাবার অভিযোগ আসে নি।
হঠাৎ করেই এমন। মাস খানেক ধরে এই সমস্যা কম ছিলো কিন্তু একটু চাপের কাজের সাথে সাথে বৃদ্ধি পায়ছে। এখন বাকা করতে পারি না মাজা। উপর থেকে চাপ দিলে কিছুই মনে হয় না। হারের মধ্যে ব্যাথা। বয়স ২১
মাইন্ড ডাইভার্ট করতে পারলে সমস্যার সমাধান হবে। আপনি অন্য কিছুতে মননিবেশ করতে পারেন তাহলে তার কথা আপনার মনে কম আসবে। ধন্যবাদ
আপনি বাপ্পি আশরাফের লেখা বইটা অনুসরণ করতে পারেন। তাছাড়া মাহবুবুর রহমানের বউটাও দেখতে পারেন। ধন্যবাদ

Database System Concepts, by Abraham Silberschatz and Hank Korth, PDF এট লিখে সার্চ দিলেই বইটা পাবেন। ধন্যাবাদ

আপনি ইশপের গল্প গুলো শোনাতে পারেন। সেটা সব দিক থেকেই ভালো হবে। ধন্যবাদ
My SQL জানা থাকলে আপনি সহজেই আপনার ডেটাবেজ তৈরি করতে পারবেন। যেহেতু প্রতিটা ওয়েজ পেজের সাথে এক বা একাধিক ডেটাবেজ সংযুক্ত থাকে সেহেতু ওটা জানা থাকা।খুব জরুরী। তা ছাড়া ভালো ওয়েব ডিজাইনার হওয়া সম্ভব না।
আপনি যদি ফটোশপ ব্যবহার করেন তাহলে নিউ পেজ নেবার সময় ঐ মাপের পেজ নিলেই হয়ে যাবে। ধন্যবাদ
প্রেম হলো কাউকে ভালো লাগা আর ভালোবাসা হলো তাকে প্রতি মুহূর্তে মনে পরা। 

উপকরন ও পরিমানঃ 
– কয়েকটা টুকরা রুই মাছ (যারা না ভেজে মাছ খেতে পারেন না আপনারা তেলে হালকা ভেঁজে নিতে পারেন তবে আমি তাজা মাছ কখনো ভেজে রান্নার পক্ষে নই)
– কয়েকটা আলু
– দুইটা/তিনটে মাঝারি পেঁয়াজ কুঁচি
– রসুন বাটা, এক টেবিল চামচ
– আদা বাটা, এক চা চামচ
– জিরা গুড়া, এক চিমটি
– হাফ চা চামচ হলুদ গুড়া
– কয়েকটা শুকনা লাল মরিচ
– লবন, পরিমান মত, শুরুতে কম দিয়েই রান্না শুরু করা উচিত, লাগলে পরে দিতে পারবেন
– পানি, পরিমান মত
– তেল, পরিমান মত

প্রণালী:
মাছ ভেজে নিন তারপর আলু সাথে সব মসলা এক সাথে মাখিয়ে নিন। পরিমান মত পানি দিয়ে চুলায় চাপিয়ে দিন। যখন মনে হবে তরকারি হতে ৮ মিনিট বাকি আছে তখন মাছ তরকারিতে দিয়ে ৮ মিনিট জাল দিয়ে নামিয়ে নিলেই হবে।
আপনি টু কলার এপস ব্যবহার করতে পারেন। ধন্যবাদ
সাউথপিক থেকে আপনি মুভিটা সরিসরি ডাউনলোড দিতে পারবেন।
জ্বী যাবে। এর জন্য আপনি াগেগে আপনার ডিপার্টমেন্টের প্রধানের সাথে আলাপ করে নিন। ধন্যবাদ

এতো অবহেলিত কেন?

আফজালমাহমুদ
May 16, 10:19 AM
বর্তমানে কওমী মাদ্রাসার ছাত্রদেরও অন্যান্য শিক্ষার মত সম মান দেওয়া হচ্ছে। ধন্যবাদ
আপনি প্যসেসর এবং র্যাম উভয়ই পরিবর্তন করতে পারবেন। কিন্তু ব্যাপারটা একটা খরচ সাপেক্ষ হয়ে যাবে। ধন্যবাদ
আপনি আপনার ল্যাপটপের ডিসপ্লের সাথে পিসির লাইন সংযুক্ত করে ব্যবহার করতে পারেন যদি আপনার ল্যাপটপেরনিটর ভালো থাকে। ধন্যবাদ
বুস্ট করলে আপনার পোষ্ট বেশি মানুষের নিকট রিটচ হবে আর প্রমোট করলে আপনার পেজে লাইকের পরিমান বৃদ্ধি হবে।
বেশি বেশি পানি খেতে হবে। ইসুবগুলের ভূষি, লেবু, ইত্যাদীর শরবত খেতে পারেন তাতে উপকার হবে। 
অফিস সহকারির যে কাজ সব করতে হবে। ধন্যবাদ
স্বপ্নদোষ হলে রোজা ভঙ্গ হয় না। স্বপ্ন দোষের পরে ফরজ গোসল তরে নিতে হবে। 

ক্রিয়া সনদপত্র কি?

আফজালমাহমুদ
May 9, 12:42 PM
ক্রিয়া সনদ হলো এমন একটি সহন যেটা প্রমাণ করে আপনি একজন ক্রিয়িবিদ। যেটা অনেক ক্ষত্রে কোটা হিসেকেও কাজ করে। বিশেষ করে প্রতিটা পাবলিশ বিশ্ববিদ্যালয়ে এই কোটা আছে। ধন্যবাদ

কবি বলেছিলেন, তার বয়স যখন তেত্রিশ পেরিয়ে গেছে তখন এমন অনুভূতি তাকে তাড়িত করেছে। তাই তিনি লিখলেন ‘কেউ কথা রাখেনি’। কবিতার কিছু অংশে কল্পনার সংমিশ্রণ থাকলেও পুরো কবিতাটিই বাস্তবতার আলোকে লেখা। কবিতায় বোষ্টমীর প্রসঙ্গ কাল্পনিক হলেও অবাস্তব নয়। কবি ১৯৩৪ সালের ৭ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার আমগ্রামের মামাবাড়িতে। তখন পৈতৃক নিবাস কালকিনির মাইজপাড়ায়। সম্ভবত ১০-১১ বছর বয়সে অর্থাৎ দেশভাগের আগেই পরিবারের সঙ্গে চলে যান কলকাতা। তবু তিনি ভুলতে পারেননি শৈশবের স্মৃতি। 
কবি বাংলাদেশ ছেড়ে চলে যাওয়ার পর ‘পঁচিশ বছর প্রতীক্ষায়’ থেকেছেন। সে সময় মনে হয়েছে তার মামাবাড়ির মাঝি নাদের আলী তাকে বলেছিল, ‘বড় হও দাদাঠাকুর তোমাকে আমি/তিন প্রহরের বিল দেখাতে নিয়ে যাব’। তিন প্রহরের বিলে সাপ আর ভ্রমরের প্রসঙ্গ এলে কবি মুচকি হেসে বললেন, তখন আমি ছোট ছিলাম। মামারা যখন নৌকা নিয়ে বিলে যেত তখন আমিও বায়না ধরতাম। কিন্তু মামারা নিতেন না। ছোট্ট সুনীলকে ভয় দেখানোর জন্য বলতেন, সে বিলে যেতে-আসতে তিন প্রহর লেগে যায়। আর সেখানে ভয়ঙ্কর সাপ রয়েছে। সেই বোধ থেকেই বিলের নাম দেন তিন প্রহরের বিল। এবং সাপ আর ভ্রমরের খেলাটা বাচ্চাদের ভয় দেখানোর জন্য বলা। এ সময় আ জ ম কামাল অভিযোগ করে বললেন, কবি কবিতায় আপনি মুসলমানদের ছোট করেছেন। একটি মাত্র চরিত্র তাও আবার মাঝি। কবি তখনো হাসলেন। বললেন, তখন মুসলমানরা এখনকার মতো এত সচেতন ছিল না। আমি তাদের ছোট করিনি বরং তাদের পশ্চাৎপদতাকে বোঝানোর চেষ্টা করেছি। তখনো মুসলমানরা শিক্ষাদীক্ষায় অনেক পিছিয়ে ছিল। মামাবাড়ির আশপাশের মুসলমানরা হিন্দু জমিদারদের বাড়ির কামলা খাটত বা নৌকা বেয়ে জীবিকা নির্বাহ করত। 
কবিরা আর্থিকভাবে অতটা সচ্ছল ছিলেন না। মার্বেল খেলার জন্য একটা রয়্যাল গুলিও তিনি কিনতে পারেননি। তখন মাইজপাড়ার লস্কররা খুবই বিত্তবান ছিল। লস্করবাড়ির ছেলেদের লাঠিলজেন্স খেতে দেখে কবি বাবার কাছে বায়না ধরতেন। বাবা বলতেন, পরে কিনে দেব। কবি অপেক্ষায় থেকেছেন। বাবা স্কুলমাস্টার। বেতন কম। তাই তার মা কবিকে বলতেন, জীবনে অন্য কিছু করবে তবু মাস্টারি করবে না। তাই কবি কখনো মাস্টারি করতে যাননি। 
রাস উৎসব প্রসঙ্গে কবি বললেন, তিনি ছেলেবেলায় খুব ডানপিটে স্বভাবের ছিলেন। তাদের গাঙ্গুলিবাড়িতে যখন রাস উৎসব হতো তখন ভেতর বাড়িতে মহিলারা নাচ-গান করত। কবি তার ব্যাঘাত ঘটাবেন বলে তাকে সেখানে ঢুকতে দেওয়া হতো না। নিজেকে অসহায় কল্পনা করে কবি এমন অভিব্যক্তি করেছেন। কবি তখন ভাবতেন, একদিন আমিও সব পাব। রয়্যাল গুলি, লাঠিলজেন্স আর রাস উৎসব সবই তিনি পেয়েছেন। কিন্তু তার বাবা এসব কিছুই দেখে যেতে পারেননি। আজ সুনীলের সব আছে কিন্তু তার স্কুলমাস্টার বাবা নেই। এই শূন্যতা তাকে বার বার গ্রাস করেছে। 
কবিকে যখন বরুণা প্রসঙ্গে জিজ্ঞাসা করা হলো, কবি তখন মুচকি হেসে প্রসঙ্গটি এড়িয়ে গেলেন। তখন কবির সঙ্গে তার স্ত্রী স্বাতী গঙ্গোপাধ্যায় ছিলেন। কবি শুধু এটুকু বললেন, এটা কল্পনা। বরুণা বলে কেউ ছিল না। তবে পরে আমরা জেনেছি, কবির এক বন্ধুর বোনের প্রতি কবির দুর্বলতা বা ভালোবাসা জন্মেছিল। কবি তার কোনো এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, সে সময়ে একমাত্র বন্ধুর সুবাদে কেবল বন্ধুর বোনের সঙ্গেই কথা বলার বা ভাববিনিময়ের সুযোগ ছিল। হয়তো বরুণা তার কল্পনার নারী। 

আপনি যেহেতু মাত্র এস এস সি পাশ করেছেন এই মুহূর্তে আপনি সেনা, নৌতে যেতে পারবেন। আর যেহেতু বিজ্ঞান বিভাগ থেকে তার ফলে আপনাকে এসব চাকরীতে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। তবে আপনার উক্ত চাকুরীর জন্য নিদ্দিষ্ট বয়স পূর্ণ হতে হবে। ধন্যবাদ
আপনি যেহেতু মাদ্রাসা থেকে পাশ করছেন প্রথমেই আপনাকে ইংরেজি বিষয়ের দিতে জোর দিতে হবে। এর আপনি কলেজে পড়ার সময় এডমিশনের পড়াটাও চালিয়ে যাবেন কিন্তু এইচ এস সি রেজাল্টের দিকে লক্ষ রাখবেন সেটা যেন ভালো হয়। পরবর্তিতে আপনি বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ব বিদ্যালয় সমুহে পরীক্ষা দিয়ে বিভিন্ন বিষয়ে অনার্সে মাস্টার্স করতে পারেন। সেখানে আইন সহ আরো অনেক গূরুত্বপূর্ন বিষয়ে অধ্যায়নের সুযোগ আছে। তাছাড়া অনার্স শেষ করে আপনি বিসিএস সব সকল জায়গা চাকরীর সুযোগ পাবেন। ধন্যবাদ